• E-paper
  • English Version
  • শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১৬ অপরাহ্ন

এবছর কোরবানির চামড়া নিয়ে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা হয়নি: শিল্পমন্ত্রী

আবির মোহাম্মদ
  • আপডেটের সময় রবিবার ২৫ জুলাই, ২০২১

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এমপি বলেছেন, চামড়া-শিল্প হচ্ছে দেশের রপ্তানি ও বহুমুখী সম্ভাবনাময় খাতের অন্যতম খাত। এ শিল্পের অধিকাংশ কাঁচামাল (কাঁচা চামড়া) কোরবানির সময় সংগ্রহ করা হয়ে থাকে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকার চামড়া-শিল্প খাতের সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। শিল্প মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য মন্ত্রণালয় এবং দপ্তর ও সংস্থাগুলোর পূর্বপ্রস্তুতি এবং সার্বিক তত্ত্বাবধানের কারণে এবারের কোরবানির চামড়া নিয়ে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা বা অব্যবস্থাপনা তৈরি হয়নি।’

মন্ত্রী বলেন, কোরবানির ঈদের সময় লবণ দিয়ে যথাসময়ে সঠিক প্রক্রিয়ায় চামড়া সংরক্ষণ করা হয়েছে। চামড়া সংরক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ লবণের সরবরাহ অব্যাহত ছিল। এরফলে কোনো চামড়া নষ্ট হয়নি।

নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন আজ রোববার জুম অন-লাইনে শিল্প মন্ত্রণালয় ও এর আওতাধীন বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তাদের সাথে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন।

শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রাষ্ট্রায়ত্ত করপোরেশন) শিবনাথ রায়, বাংলাদেশ রসায়ন শিল্প সংস্থার (বিসিআইসি) চেয়ারম্যান শাহ মোঃ ইমদাদুল হক ও বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প সংস্থার (বিসিক) চেয়ারম্যান মোঃ মোশতাক হাসান বক্তৃতা করেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (পরিকল্পনা) মোঃ গোলাম ইয়াহিয়া এ অনুষ্ঠানটি সঞ্চলনা করেন।

শিল্প মন্ত্রণালয় ও এর আওতাধীন দপ্তর/ সংস্থার ঊধ্বর্তন কর্মকর্তাবৃন্দ এ অনুষ্ঠানে ভার্চ্যূয়ালি সংযুক্ত ছিলেন।

নূরুল মজিদ মাহমুদ এ সময় জানান, জেলা, বিভাগ ও মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে গঠিত মাঠ পর্যায়ের মনিটরিং অব্যাহত রাখার পাশাপাশি সঠিকভাবে টিমওয়ার্কের কারণে চামড়া সংগ্রহ, পরিবহন এবং সংরক্ষণের জন্য চামড়া ব্যবস্থাপনায় এবার সুফল এসেছে।

তিনি বলেন, ‘এবছর প্রচার ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম ব্যাপকভাবে চালানো হয়েছে, যার ফলে আমরা কোরবানির চামড়া ব্যবস্থাপনার সুফল পেয়েছি’।

শিল্পমন্ত্রী দৃঢ়তার সাথে বলেন, করোনা মহামারীর মধ্যেও শিল্প মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন সার্বিক কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। শিল্পখাতের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে স্বাস্থ্য-সুরক্ষা ব্যবস্থা প্রতিপালন করে সুস্থ থাকতে হবে এবং সচেতন হতে হবে।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোরবানির চামড়া কিভাবে সংরক্ষণ ও স্থানান্তর করতে হয় সে-বিষয়ে শিল্প মন্ত্রণালয় যথাসময়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও যথাযথ কার্যক্রম পরিচালনা করার কারণে এ বছর চামড়া নিয়ে কোনো অভিযোগ পাওযা যায়নি।


এই ক্যাটাগরিতে আরো খবর