• E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১২:১৭ পূর্বাহ্ন

ভোলার রাজাপুরে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণ, যৌনাঙ্গে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ

আকতারুল ইসলাম আকাশ, ভোলা
  • আপডেটের সময় বুধবার ৩ মার্চ, ২০২১

ভোলা সদর উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের কন্দকপুর গ্রামে প্রতিবেশী ব্যবসায়ি দাদা সালাউদ্দিন মীরের (৫৩) ধর্ষণের শিকার হয়েছে তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ুয়া ছাত্রী।

বুধবার দুপুরে ওই ছাত্রীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ভোলা থানা পুলিশ রক্তাক্ত অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। ধর্ষক সালাউদ্দিন জনতা বাজারের মুদি ব্যবসায়ি। ভিক্টিম স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী।

পুলিশ জানিয়েছেন, বুধবার দুপুর একটায় ধর্ষক সালাউদ্দিন ওই ছাত্রীর ঘরে প্রবেশ করে। এসময় ঘরে কেউ না থাকার সুযোগে ধর্ষক ছাত্রীর মুখ চেপে ধর্ষণ করে। পরে ভিক্টিমের চিৎকার শুনে ভিক্টিমের চাচি পাশে থাকা ঘর থেকে বের হলে দৌঁড়ে পালিয়ে যায় ধর্ষক সালাউদ্দিন।

পুলিশ আরও জানায়, ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর যৌনাঙ্গে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়েছে। ঘটনার পরপরই ভিক্টিমকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনায়েত হোসেন জানান, ভিক্টিমকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় কোনো লিখিত অভিযোগ বা মামলা করা হয়নি। লিখিত অভিযোগ বা মামলা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।


এই ক্যাটাগরিতে আরো খবর