• E-paper
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:২০ পূর্বাহ্ন

হঠাৎ তিস্তার পানি বিপদ সীমার ৬০ সে. মি. উপরে

আজিজার রহমান, দিনাজপুর
  • আপডেটের সময় বুধবার ২০ অক্টোবর, ২০২১

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে প্রবলবৃষ্টিপাতে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে লালমনিরহাটে তিস্তা ব্যারাজ ডালিয়া পয়েন্টে নদীর আজ সকাল থেকে বিপদ সীমার ৬০ সে. মি. উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে

বুধবার (২০ অক্টোবর) সকালে তিস্তা নদীর পানি তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে
বিপৎসীমার ৬০ সে: মি: উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় জেলার চর অঞ্চলের বসতবাড়ি গুলোতে পানি উঠতে শুরু করেছে।

তিস্তা ব্যারাজ’র পানি বিজ্ঞান শাখার উপ-সহকারী প্রকৌশলী ইলিয়াস আলী
জানান, ভারত থেকে প্রচন্ড গতিতে পানি বাংলাদেশের দিকে ধেয়ে আসছে। তিস্তা
ব্যারাজের সব গেট খুলে দিয়ে পানির চাপ নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করা হচ্ছে।
আরও কি পরিমান পানি আসবে তা ধারণা করা যাচ্ছে না।

হঠাৎ পানি বৃদ্ধি পাওয়ার কারণ পানি উন্নয়ন বোর্ড লাল সংকেত জারী করে
মানুষজনকে নিরাপদ স্থানে অবস্থানের আহব্বান জানিয়েছেন। হঠাৎ পানি বৃদ্ধি
পাওয়ার কারণ এলাকার হাজার হাজার পরিবার ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিতে শুরু করেন।।

তিস্তা ব্যারাজের সব গেট খুলে দেওয়ার পরও তিস্তার পানি বিপদ সীমার উপর
দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন উপ-সহকারী প্রকৌশলী ইলিয়াস আলী। এতে তিস্তা ব্যারাজ রক্ষায় উত্তর পার্শ্বে অবস্থিত ফ্লাড ফিউজ হুমকীর মুখে
পড়েছে। যে কোন সময় তা বিধ্বস্থ হতে পারে। এটি ভেঙ্গে গেলে তিস্তা
ব্যারাজের সাথে লালমনিরহাট জেলার বুড়িমারী, পাটগ্রাম, হাতিবান্ধার সাথে
নীলফামারী জেলার সড়ক পথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হতে পারে।

গতকাল মঙ্গলবার(১৯ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত তিস্তার পানি বিপদসীমার
অনেক নিচে ৫১.৪০ দিয়ে প্রবাহিত হলেও সেই পানি ১২ ঘন্টার ব্যবধানে ১০৭
সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। যা সকাল সাড়ে ৯টায় আরও ১০ সেন্টিমিটার পানি
বৃদ্ধি পায়।


এই ক্যাটাগরিতে আরো খবর