• E-paper
  • English Version
  • শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ০২:৩৯ পূর্বাহ্ন

দেশের বাইরে হাবিবুন্নাহারের নাহার’স স্পেশাল হেয়ার ওয়েল

জাবেদ তালুকদার, হবিগঞ্জ
  • আপডেটের সময় বুধবার ১২ জানুয়ারী, ২০২২

দীর্ঘ ৭ বছর আগে কয়েকজন ইউনানী ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ও পুরনো আয়ুর্বেদিক বই পড়ে হোমমেইড হেয়ার ওয়েল তৈরী শুরু করেন হবিগঞ্জের শায়েস্তানগর এলাকার বাসিন্দা শেখ হাবিবুন্নাহার হৃদি (নারগিস)। প্রথমে নিজের ও পরিবারের জন্য এ তেল তৈরী করলেও
আস্তে আস্তে প্রতিবেশীরাও ব্যবহার করতে শুরু করেন। পরে শুভাকাঙ্খীদের পরামর্শে অনলাইন ভিত্তিক বিভিন্ন প্লাটফর্মে প্রায় ১ বছর ধরে তেল নিয়ে কাজ শুরু করেন তিনি। শুধু জেলা-উপজেলা নয় দেশের গন্ডি পেরিয়ে ফ্রান্স, দুবাই, লন্ডন, ইতালি, সৌদী আরব থেকেও কাস্টমাররা হাবিবুন্নাহারের তেল নিচ্ছেন। এ পর্যন্ত ১১ বার দেশের বাইরে তেল পাঠিয়েছেন তিনি।

চুলের যেকোন সমস্যায় তার তেল কার্যকরী বলেই তার তেল ব্যবহার করছেন বলে জানিয়েছেন কাস্টমাররা। ফেইসবুকে তার তেলের বিজ্ঞাপন ও কাস্টমারদের রিভিউ দেখে তার তেলের প্রতি আস্থা জন্মেছে তাদের। বেশ কয়েকজন ডাক্তারও তার তেল ব্যবহার করছেন। তার তেল ব্যবহারের ফলে চুলের সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি অনিদ্রা দূর হয়।

শব্দকথার প্রতিবেদকের সাথে তার কথা হলে তিনি বলেন, প্রায় ৭ বছর আগে আমি কাজ শুরু
করেছিলাম, নিজের পরিবারের জন্যই তেল তৈরী করতাম আস্তে আস্তে প্রতিবেশীরাও তেল ব্যবহার করতে শুরু করেন। পরে তাদের পরামর্শে অনলাইনভিত্তিক বিভিন্ন প্লাটফর্মে তেল নিয়ে কাজ শুরু করি। আলহামদুলিল্লাহ ভাল সারা পেয়েছি। এ কাজে আমার মা আমাকে সর্বোচ্ছ সহযোগীতা করেছেন, তেলের জন্য বেশ কিছু কাচাঁ উপাদান প্রয়োজন, কয়েকটা উপাদান কিনতে পাওয়া যায়না এগুলো আমার মা আমাকে বিভিন্ন জায়গা সংগ্রহ করে দিয়েছেন থেকে এখনও দিচ্ছেন।

উদ্যোক্তা হিসেবে তার সবচাইতে বড় অর্জন সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন,
কাস্টমারদের বিশ্বাসটাই আমার সবচাইতে বড় অর্জন। আমার কাস্টমাররাই আমাকে কাস্টমার এনে দেন, আমি তাদের প্রতি চির কৃতজ্ঞ। আমার ছোট ২টা মেয়েকে সামলাতে হয়, পরিবারের সকল কাজ একাই করতে হয়, সবমিলিয়ে তেল নিয়ে কাজ করাটা খুব কষ্টকর। কাস্টমাররা যখন আমার তেলের দ্বারা উপকৃত হন এবং রিভিউ দেন সব কষ্ট ভূলে যাই। তখন মনে হয় আমার কষ্টটা স্বার্থক হয়েছে আমার দ্বারা একজন উপকৃত হয়েছে। তেল নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা বলতে এভাবেই সবাইকে সেবা দিতে চাই, এ কাজে সবার সহযোগিতা কামনা করি, যদি কখনো সুযোগ হয় তেলের একটি প্রতিষ্ঠান করতে চাইবো।


এই ক্যাটাগরিতে আরো খবর