“সন্তানদের উন্মুক্ত আকাশের নীচে অভুক্ত অবস্থায় রেখে আমরা সুখনিদ্রায় যেতে পারি না”

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  • আপডেটের সময় বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী, ২০২২

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সৃষ্ট অচলাবস্থা নিরসনে দেশে ও প্রবাসে থাকা সিলেটের প্রতিনিধিত্বশীল ২৫ নাগরিকদের পক্ষ থেকে সংবাদপত্রে একটি বিবৃতি প্রদান করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্বুদ্ধ পরিস্থিতি নিয়ে এখন শুধু উদ্বেগ জানিয়ে বসে থাকলেই আর চলবে না। ঐতিহ্য আর ভালোবাসার ধারক এ বিশ্ববিদ্যালয়কে পরিকল্পিতভাবে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা বেশ আগে থেকেই শুরু হয়েছে। প্রতিবারই নাগরিক সমাজ সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে দাঁড়িয়েছে। আজকের দিনেও বসে থাকার অবকাশ নেই।

বিবৃতিতে বলা হয়, ভাইস চ্যান্সেলর, শিক্ষক নেতা, রাজনৈতিক নেতা আর ছাত্র নেতাদের দাবা খেলার সময় এখন নয়। বিশ্ববিদ্যালয় আজ বিপন্ন। আমাদের সন্তানরা উন্মুক্ত আকাশের নীচে অনশন করছে।

সন্তানদের উন্মুক্ত আকাশের নীচে অভুক্ত অবস্থায় রেখে আমরা সুখনিদ্রায় যেতে পারি না।

এখন রাজনীতি আর কৌশল চালাচালির সময় নয়। আমাদেরকে সন্তানদের পাশে দাঁড়াতে হবে। আমরা দাঁড়ালাম শিক্ষার্থীদের পাশে। আলোচনা হোক আর অনুশোচনার সিদ্ধান্ত হোক – অবিলম্বে শাহাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অচলাবস্থার অবসান এখন শুধু শিক্ষার্থীদের নয় , এটি একটি নাগরিক দাবী। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক কার্যক্রম চালু করতে শিক্ষার্থীদের সকল যৌক্তিক দাবীর সাথে সংহতি প্রকাশ করছি।

বিবৃতিদাতারা হচ্ছেন- 

১) সুপ্রীম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবি অ্যাডভোকেট তবারক হোসেন, 

২) পুলিশের সাবেক এআইজি মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ বজলুল করিম, 

৩) প্রথম আলো উত্তর আমেরিকা সম্পাদক ইব্রাহীম চৌধুরী খোকন, 

৪) স্থপতি ইস্টিটিউট সিলেট-এর সভাপতি স্থপতি জেরিনা হোসেন, 

৫) প্রত্নতত্ত্ব সংগ্রাহক ডাঃ শাহজামান চৌধুরী বাহার,

৬) বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড সার্ভিসেস এন্ড ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) সিলেটের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট ইরফানুজ্জামান চৌধুরী, 

৭) প্রবীন নাগরিক সংগঠক ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, 

৮) প্রবাসী সংগঠক ও ঐতিহ্য গবেষক সাকী চৌধুরী

৯) বাংলাদেশ সোসাইটি, আমেরিকা’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক রানা ফেরদৌস

৯)  সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট ই ইউ শহীদুল ইসলাম, 

১০) জালালাবাদ এসোসিয়েশন ঢাকা-এর সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট মো: জসিম উদ্দিন আহমেদ, 

১১) মৌলভীবাজার জেলা সমিতি ঢাকা-এর সভাপতি ডা. সৈয়দ মোশতাক আহমদ, 

১২) মুক্তিযুদ্ধ গবেষক তাজুল মোহাম্মদ,

১৩) উন্নয়নকর্মী শেখর ভট্টাচার্য, 

১৪) শিক্ষাবীদ প্রফেসর মনোজ কুমার সেন,

১৫) সম্মিলিত নাট্য পরিষদ, সিলেট-এর সভাপতি মিশফাক আহমেদ মিশু

১৬) উদিচী সিলেট জেলা শাখার সভাপতি এনায়েত হোসেন মানিক, 

১৭) প্রবাসী লেখক ও গীতিকার ইশতিয়াক রুপু

১৮) নাগরিক মৈত্রী সিলেটের আহ্বায়ক সমর বিজয় সী শেখর, 

১৯) প্রবাসী সমাজকর্মী ও লেখিকা জেসমিন চৌধুরী,

২০) সংক্ষুব্ধ নাগরিক আন্দোলন সিলেট-এর সমন্বয়ক আব্দুল করিম কিম, 

২১) সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক ছামির মাহমুদ, 

২২) বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) হবিগঞ্জ শাখার সাধারন সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল, 

২৩) বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি অ্যাডভোকেট সুদীপ্ত অর্জুন,

২৪)  মানবাধিকার কর্মী লক্ষ্মীকান্ত সিংহ

২৫) দুষ্কাল প্রতিরোধে আমরা’র সংগঠক দেবাশিষ দেবু। 


এই ক্যাটাগরিতে আরো খবর