জিপিএ ৪.৯২ পেলেন মাদারগঞ্জের বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী মেয়ে তানিয়া মোস্তাকিন

সোহাগ হোসেন, মাদারগঞ্জ
  • আপডেটের সময় সোমবার ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

জন্মগতভাবেই বাক ও শ্রবণ তানিয়া মোস্তাকিন। অক্ষমতাকে জয় করে সে এবার এইচ.এস.সি পরীক্ষায় জিপিএ ৪ দশমিক ৯২ পেয়েছে।

বাবার প্রতিবন্ধী কন্যার সাফল্যকে দমিয়ে রাখতে পারেনি কোনোকিছুই। তার এ সাফল্য এলাকায় ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছেন। অদম্য প্রতিভার অধিকারী সে। প্রতিবন্ধী হলেও জীবনযুদ্ধে থেমে নেই অপ্রতিরোধ্য তানিয়া। ২০১৯ সালে মিরপুর বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ ৪ দশমিক ৩৯ পেয়েছিল। ২০২১ বর্ষে গুলশান ডিগ্রি কলেজ থেকে এইচ.এস.সি পরীক্ষায় অংশ নেয়। গতকাল পরিক্ষার ফল প্রকাশ হলে তার এই ফলাফল জানা যায়।

বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী তানিয়া জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার পৌর শহরের গাবেরগ্রামের মোস্তাকিন প্রামাণিকের মেয়ে। পড়াশুনার তাগিদে ঢাকায় চাচার বাসায় থাকে সে। তানিয়ার আরো ২টি সুস্থ স্বাভাবিক বোন আছে। একজন মাদারগঞ্জ এ.এইচ.জেড সরকারি কলেজ অনার্স দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যয়ত ও আরেকজন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে নার্সিং এ অধ্যয়নরত।

অদম্য তানিয়ার উচ্চতর ডিগ্রি করার খুব আগ্রহ। তানিয়ার চাচা রাশেদুল করিম লিটন বলেন, তানিয়া জিপিএ ৪ দশমিক ৯২ পেয়েছে। এতে আমরা সবাই খুশি। বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীকতা নিয়ে মেয়েটি সংগ্রাম করে এতদূর এসেছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানসহ বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সবার নজর কেড়েছেন তিনি।


এই ক্যাটাগরিতে আরো খবর