সাপাহারে আদিবাসী প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার-১

মাহমুদুন্নবী পত্নীতলা, নওগাঁ
  • আপডেটের সময় রবিবার ১৭ এপ্রিল, ২০২২

নওগাঁর সাপাহারে মুসলিম পুরুষ দ্বারা আদিবাসী বাক-প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের অভিযোগে মফি উদ্দিন (৪৩) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেন থানা পুলিশ।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) উপজেলার আইহাই ইউনিয়নের শুক্রইল আদিবাসী পাড়ার নিতাই ভূঁইয়ার দ্বিতীয় স্ত্রী বাক-প্রতিবন্ধী সাধনা ভূঁইয়া (৩২) দুপুরে মাঠে ঘাস কাটতে গেলে পাশের গ্রাম আইহাই দিঘী পাড়া এলাকার মোঃ আলতাফ উদ্দিনের ছেলে মফি উদ্দিন জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

স্বামী নিতাই ভূঁইয়া বাদী হয়ে আজ রোববার (১৭ এপ্রিল) সকালে সাপাহার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলা করার সাথে সাথে সাপাহার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেকুর রহমান সরকারের নেতৃত্বে পুলিশের ৩টি চৌকস টিম অভিযান পরিচালনা করে আসামি মফি উদ্দিনকে গ্রেফতার করেন।

অভিযোগকারীর স্বামী ও স্থানীয়রা জানান, প্রতিদিনের মতো সাধনা ভূঁইয়া ছাগলের ঘাস কাটতে মাঠে যায়। দুপুরে মাঠে কেউ না থাকায় পাশের গ্রাম আইহাই দিঘী পাড়ার মফি উদ্দিন সাধনা ভূঁইয়াকে গলায় হাঁসুয়া ঠেকিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ঘটনা স্থলে আরো এক ব্যক্তি আছে বলেও জানান ভিকটিম।

এবিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার জানান, ভিকটিমের স্বামী নিতাই ভূইয়াঁ তার স্ত্রী বাক-প্রতিবন্ধী সাধনা ভূঁইয়া ধর্ষণে বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার সঙ্গে সঙ্গে ফোর্স পাঠিয়ে আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।


এই ক্যাটাগরিতে আরো খবর